আজও গ্যালারিতে পাকিস্তানের বিশাল একটি পতাকা ওড়াচ্ছেন দর্শকরা

প্রথম ম্যাচে মাত্র ৭ রানেই প্যাভিলিয়নে ফিরেছিলেন নাজমুল হাসান শান্ত। তখনই প্রশ্ন উঠেছিল তার টি-টোয়েন্টি সামর্থ্য নিয়ে। শান্ত জবাবটা দিলেন ব্যাট হাতেই। দলের বিপর্যয়ে একপ্রান্ত আগলে রেখে করেছেন দুর্দান্ত ব্যাটিং; আউট হওয়ার আগে করেছেন ৪০ রান।

শোয়েব মালিককে হাঁটু গেড়ে বসে স্কয়ার লেগের ওপর দিয়ে বাউন্ডারীটি যখন নাজমুল হোসেন শান্ত মারলেন, তখন দুই ওপেনারকে হারিয়ে বিপর্যয়ে বাংলাদেশ দল।

সেখান থেকেই আফিফ হোসেনকে নিয়ে ৪৬ রানের জুটি; রিভার্স সুইপ করতে গিয়ে উইকেটকিপার মোহাম্মদ রিজওয়ানের গ্লাভসবন্দী হয়ে আফিফ প্যাভিলিয়নে না ফিরলে জুটিটা হতে পারতো আরও বড়।

আফিফ ফিরলেও অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদকে নিয়ে জুটি গড়ার চেষ্টায় ছিলেন শান্ত, কিন্তু হারিস রউফের বলে কিপারের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরেছেন রিয়াদও। ২৮ রানের জুটিতে রিয়াদের ব্যাট থেকে এসেছে ১২ রান।

একপ্রান্ত দিয়ে উইকেটের পতন হতে থাকলেও, শান্ত খেলছিলেন একপ্রান্ত আগলে রেখেই। কিন্তু, শাদাব খানের বলে তার হাতেই ক্যাচ দিয়ে ড্রেসিংরুমে ফিরেছেন শান্ত; বাঁ প্রান্তে ঝাপিয়ে পাকিস্তান স্পিনারের দুর্দান্ত ক্যাচ।

এদিকে, বাংলাদেশ বনাম পাকিস্তানের মধ্যকার দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে গ্যালারিতে পাকিস্তানের বিশাল একটি পতাকা ওড়াচ্ছেন দর্শকরা।