এবার চালের দাম বাড়ছে হু হু করে

তেলের দাম বাড়ার প্রভাব পড়েছে চালের বাজারে। কুষ্টিয়ার বাজারে সব ধরনের চালের দাম বেড়ে যাওয়ায় পাল্লা দিয়ে ধানের দামও বাড়ছে। এদিকে দফায় দফায় চালের দাম বৃদ্ধির কারণে ক্রেতাদের নাভিশ্বাস উঠেছে।

কুষ্টিয়া শহরের পৌর বাজার এবং বড় বাজার ঘুরে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, ডিজেলের মূল্য বৃদ্ধির ঘোষণার পরপরই নভেম্বর মাসের শেষ সপ্তাহ থেকে কুষ্টিয়ার বাজারে সব ধরনের চালের দাম বাড়তে শুরু করে।

নতুন ধান বাজারে ওঠার পরও কুষ্টিয়ায় চালের দাম বাড়ছে হু হু করে। যার প্রভাব পড়ছে সারা দেশে ভাত খাওয়া মানুষের ওপর। চালের দাম বাড়ার কারণে বেড়ে গেছে ভাতের খরচ।

খুচরা বাজারে সব ধরনের চালের দাম কেজিপ্রতি ২ থেকে ৩ টাকা বেড়েছে। চাল কল মালিকরা বলছেন, ধানের দাম বেশি থাকার কারণে চালের বাজারে এই প্রভাব পড়ছে। সেই সঙ্গে ডিজেলের দাম বেড়ে যাওয়ায় বেড়েছে পরিবহন খরচ।

তাই চালের দামও বাড়ছে। এখন চলছে আমন ধানের ভরা মৌসুম। কুষ্টিয়ার অধিকাংশ মাঠ থেকে ধান কেটে ঘরে তোলায় ব্যস্ত কৃষকরা। এ সময় চালের দাম কম থাকার কথা থাকলেও খুচরা বাজারে কেজিপ্রতি চালের দাম বেড়ে গেছে ২ থেকে ৩ টাকা।

চালের বড় মোকাম কুষ্টিয়ার খাজানগরের মিলগুলোতেও বেড়েছে চালের দাম। আর দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম চালের মোকাম কুষ্টিয়ায় চালের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় সারা দেশেই এর প্রভাব পড়েছে। আমন ধানের ভরা মৌসুমে চালের দাম বেড়ে যাওয়ায় ক্ষোভ জানিয়েছেন সাধারণ ক্রেতারা।

কুষ্টিয়ার খাজানগর এলাকার চাল ব্যবসায়ী বাংলাদেশ অটো রাইচ মিল ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন কুষ্টিয়া জেলা শাখার সভাপতি ওমর ফারুক জানান, কৃষকরা যাতে লাভবান হতে পারেন সেজন্য সরকারই ধানের দাম বাড়িয়ে দিয়েছে। সরকার ১০৮০ টাকা মণ দরে আমন ধান কিনছে।

একদিকে ডিজেলের মূল্য বৃদ্ধি সেই সঙ্গে চাহিদা বেড়ে যাওয়ার কারণেও কৃষকরা বাজারে ধানের দাম বাড়িয়ে দিয়েছে। যে কারণে বাজারে চালের দাম বাড়তির দিকে। কুষ্টিয়া জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের তথ্য মতে, জেলায় এবার ৮৮ হাজার ৮৮২ হেক্টর জমিতে আমন ধান চাষ হয়েছে। যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়েও বেশি।