মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চকে নিষিদ্ধের দাবিতে বাংলাদেশ খেলাফত যুব মজলিসের বিক্ষোভ

বাংলাদেশ খেলাফত যুব মজলিসের কেন্দ্রীয় সভাপতি পরিষদ সদস্য মাওলানা আবুল হাসানাত জালালী বলেছেন, যারা আজ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের নামে আস্ফালন করছে এদের কেউ মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেনি।

১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধ হয়েছিল এদেশের স্বাধীনতা অর্জনের জন্য। সেটা ইসলামের বিরুদ্ধে ছিল না। তথাকথিত মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ আজ ইসলামকে মুক্তিযুদ্ধের বিরুদ্ধে দাড় করিয়ে মুক্তিযুদ্ধকে বিকৃত করে জাতীর সাথে গাদ্দারি করছে।

মুক্তিযুদ্ধের নামে এই ভুঁইফোড় সংগঠনকে এখনই নিষিদ্ধ করতে হবে। মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের ব্যানারে যারাই আলেমদের বিরুদ্ধে অবমাননা করেছে প্রত্যেককে গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে।

রবিবার (২২ নভেম্বর) বিকালে মুহাম্মাদপুরে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ থেকে আলেম-ওলামাদের অবমাননা, দেশব্যাপী ধর্মীয় মাহফিলে বাধা ও মাওলানা মামুনুল হকের বিরুদ্ধে সমকাল পত্রিকার মিথ্যা সংবাদ প্রচারের প্রতিবাদে বাংলাদেশ খেলাফত যুব মজলিস ঢাকা মহানগরী কর্তৃক আয়োজিত বিক্ষোভ মিছিল পরবর্তী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

মাওলানা আবুল হাসানাত জালালী বলেন, আজকে বিভিন্ন স্থানে ওয়াজ মাহফিল বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে, এমন আত্মঘাতি সিদ্ধান্ত থেকে সরকারকে সরে আসার আহ্বান জানাচ্ছি। জনগন যদি মাঠে নেমে আসে সড়কে সড়কে মাহফিল এর আয়োজন করা হবে।

সভাপতির বক্তব্যে সংগঠনটির নগর সভাপতি মাওলানা রাকীবুল ইসলাম বলেন, উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে সমকাল পত্রিকা সহ নানা মিডিয়া মামুনুল হকের নামে মিথ্যা বানোয়াট সংবাদ প্রকাশ করে নগ্ন প্রচারণায় মেতে উঠেছে।

মিথ্যা প্রচারণার মাধ্যমে মামুনুল হকের কন্ঠকে রোধ করা যাবে না। দ্রুত এসব নিউজ প্রত্যাহার করে সমকাল পত্রিকার সম্পাদককে নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা করতে হবে।

মাওলানা আব্দুল্লাহ আশরাফের পরিচালনায় বিক্ষোভ সমাবেশে আরো উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস ঢাকা মহানগরীর সভাপতি মাওলানা রূহুল আমীন খান, সহ সভাপতি মাওলানা ইলিয়াস হামিদী, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা এহসানুল হক,

যুব মজলিসের কেন্দ্রীয় সমাজকল্যাণ বিভাগের সম্পাদক মাওলানা শরীফ হুসাইন, ঢাকা মহানগরীর সহ সভাপতি মাওলানা জাহিদুজ্জামান, মজলিসে আমেলা সদস্য মাওলানা মুর্শিদুল আলম সিদ্দিকী, মাওলানা আবুল হুসাইন, খেলাফত ছাত্র মজলিসের কেন্দ্রীয় সভাপতি মাওলানা জাকির হুসাইন প্রমুখ।