স্কুলসমূহে হিজাব নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করলো সুইডেন

সুইডেনের একটি প্রশাসনিক আদালত সেদেশের দক্ষিণাঞ্চলীয় স্কোন রাজ্যের স্কুলসমূহে হিজাবের নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করেছে।

গত মঙ্গলবার (১৭ই নভেম্বর) সুইডেনের দক্ষিণাঞ্চলীয় মাল্মে প্রশাসনিক আদালত এক বিবৃতিতে স্কোন রাজ্যের স্করপ সিটি কাউন্সিলের স্কুলসমূহে হিজাব নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্তটি বাতিল করা হয়েছে। আদালত গুরুত্বারোপ করে বলেছে, হিজাব নিষেধাজ্ঞার বিষয়টি ধর্মীয় স্বাধীনতা সম্পর্কিত সুইডিশ সংবিধানের সাথে সাংঘর্ষিক।

সোমবার (১৬ই নভেম্বর) সুইডেনের বিচার বিভাগ একটি বিবৃতি জারি করে, সেদেশের সংবিধান লঙ্ঘনের কারণে হিজাব নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়েছে।
২০১৯ সালের ডিসেম্বরে, স্করপিও পৌরসভা ১৩ বছরের কম বয়সী ছাত্রীদের জন্য স্কুলে হেডস্কার্ফ ব্যবহারের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে।

এই সিদ্ধান্তের প্রতিক্রিয়া জানিয়ে ইস্কুরুপ বিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ ম্যাথিয়াস লিডেলহাম এক বক্তৃতায় বলেন, আমরা এই আইনটিকে স্বীকৃতি দেব না এবং এই আইন আমাদের স্কুলে প্রয়োগ করা হবে না।

সিটি কাউন্সিলের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে লিডেলহাম বিরোধিতার পরে, তার বিরুদ্ধে গত ফেব্রুয়ারিতে সোশ্যাল মিডিয়ায় মৃত্যুর হুমকি বার্তা এবং হুমকিমূলক প্রতিক্রিয়া প্রেরণ করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: বিক্ষোভে যোগ দিতে সিলেট যাচ্ছেন হেফাজতের আমীর-মহাসচিব

দেশের সর্ববৃহৎ অরাজনৈতিক সংগঠন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় আমীর ও মহাসচিব শনিবার সিলেটে যাচ্ছেন।

ফ্রান্সে রাষ্ট্রীয় মদদে মহানবীর (সা.) ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ সিলেটের উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ নগরীর ঐতিহাসিক সিটি পয়েন্টে আজ অনুষ্ঠিত হবে। সেই বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সমাবেশে যোগ দিতেই তারা সিলেটে যাচ্ছেন।

বিক্ষোভ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেবেন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমীর আল্লামা জুনাইদ বাবুনগরী। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখবেন কেন্দ্রীয় মহাসচিব আল্লামা নূর হুসেইন কাসেমী, আল্লামা মামুনুল হক, মাওলানা আজিজুল ইসলাম ইসলামাবাদীসহ কেন্দ্রীয় নেতারা।

সমাবেশ সফলের লক্ষ্যে সব উপকমিটি ও আহবায়করা নিরলসভাবে কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। সব দাওয়াতী উপকমিটি, অর্থ উপকমিটির দায়িত্বশীলরা বৃহস্পতিবার এদারা ভবনে বাস্তবায়ন কমিটির সম্মেলনে কাজের বিবরণী পেশ করেন।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টায় সিলেটের নবাগত পুলিশ কমিশনার নিশারুল আরিফের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন সমাবেশ বাস্তবায়ন কমিটির নেতারা। মহানগর ইমাম সমিতির সভাপতি মাওলানা হাবীব আহমদ শিহাবের নেতৃত্বে পুলিশ কমিশনারের সঙ্গে আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন- বাস্তবায়ন কমিটির সমন্বয়কারী মাওলানা ইউসুফ আহমদ খাদিমানী, মাওলানা এনামুল হক, মাওলানা মুজিবুর রহমান কাসেমী ও মাওলানা সিরাজুল ইসলাম।

পুলিশ কমিশনার নিশারুল আরিফ এ সময় বলেন, শাহজালালের পুণ্যভূমিতে সবার সহযোগিতা নিয়ে কাজ করতে চাই। বিক্ষোভ সমাবেশ সফল করতে আমরা সব ধরনের সহযোগিতা করব ইনশাআল্লাহ। দেশের কল্যাণে আলেম সমাজ সর্বদা তৎপর। শান্তি-শৃঙ্খলা অক্ষুণ্ন রাখা সবার দায়িত্ব।